প্রশ্ন সম্পর্কে কিছু কথা


১। এবারে প্রশ্ন হবে ক্লাস ৬-৮ এর জন্য এক রকম এবং ৯-১২ এর জন্য হবে একরকম ।

২। প্রশ্ন একই সাথে বাংলা এবং ইংরেজিতে থাকবে ।

৩। প্রশ্ন এর প্রথম পাতায় শিক্ষার্থীদের জন্য কিছু তথ্য দেওয়া হয়েছে যথা
– প্রশ্ন এর মাঝে ফাকা স্থানে সমাধান লিখতে হবে । যদি কোন প্রশ্নের সমাধান অতিরিক্ত স্থান লাগে তাহলে পরিক্ষার্থী কোন এক ভলিন্টিয়ারের কাছে অতিরিক্ত কাগজ চেয়ে নিতে পারবে । সেক্ষেত্রে অতিরিক্ত কাগজে কোন প্রশ্নের কত নম্বর সমধান করা হয়েছে স্পষ্ট ভাবে লিখতে হবে ।
– প্রশ্নের শেষ সমাধানকৃত মানের চেয়ে কীভাবে সমাধান করা হয়েছে তা গুরুত্বপূর্ণ । কেউ যদি শেষ মান বের করতে নাও পারে বা সময়ের অভাবে মান বসাতে ভুল হয় সেক্ষেত্রে সে অবশ্যই কিছুটা নম্বর পাবে ।
– প্রশ্নের সমধানের যুক্তিযুক্ত অনুমান গ্রহনযোগ্য ।
– অনেক প্রশ্নের শেষ মান বিভিন্ন জ্যোতির্বৈজ্ঞানিক একক এর বের করতে হতে পারে । যেমন কিলোমিটার এর জায়গায় জ্যোতির্বিদ্যা একক- Astronomical Unit , এসব ক্ষেত্রে অবশ্যই মান যে এককে চাওয়া হয়েছে তাই বের করা লাগবে ।

৪। প্রয়োজনে বিভিন্ন ডায়াগ্রাম আঁকতে হতে পারে যা অবশ্যই স্পষ্ট করে আঁকাতে হবে । কম্পাসের প্রয়োজন হতে পারে ।

৫। নন- প্রোগ্রামেবল সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে ।

৬। প্রথম পাতায় প্রশ্ন সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় সকল একক, জ্যোতির্বৈজ্ঞানিক একক এবং সুত্র দিয়ে দেওয়া হয়েছে । প্রশ্ন সমাধানের প্রত্যকটি মান কাজে লাগবে ।

৭। প্রশ্নের সাথে [ ] ব্র্যকেট এর ভিতরে প্রশ্নের মান বন্টন দেওয়া হয়েছে । সময় খেয়াল করে বেশী নম্বর পেতে এটি খেয়াল করা উচিত ।

৮। প্রিপারেশন এর জন্য আমাদের ওয়েবসাইট খেয়াল করুন – https://bdoaa.org/resources/

৯। স্পট রেজিস্ট্রেশন থাকবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *